সংখ্যা ০৩

ঝড়ে ভাঙ্গা ঢেউ কতো বলিষ্ঠ বাহু ওঠাবে!

ছবি সিরিজ – “ঝড়ে ভাঙ্গা ঢেউ কতো বলিষ্ঠ বাহু ওঠাবে!”
শিল্পী – ছন্দক চ্যাটার্জী

শেয়ার করুন

‘চল হকের জমি ছিনাই লিবি চল…’

অথচ এই মেয়েরাই বেঁচে থেকেছেন একে অপরের স্মৃতি আঁকড়ে, নিজের কথা বলতে গিয়ে বলেছেন অন্য মহিলা কমরেডদের কথা, যৌথ যাপনের কথা, সমষ্টিগত লড়াইয়ের কথা। সেই গল্পকথায় বারবার উঠে এসেছে কৃষি কাজের কথা, সেই গল্পে বারবার উঠে এসেছে গৃহশ্রমের কথা, সেই গল্পে বারবার উঠে এসেছে জমির সাথে তাদের সম্পর্কের কথা, তাদের রাজনৈতিক শ্রমের কথা। তাই বিনা দোষে জেল খেটে আন্দোলনে যোগ দেওয়ার গল্প বলতে বলতে অবলীলায় লীলা কিষান বলে ওঠেন, “আল বাঁধতে পারে, রুপ্নি করতে পারে, বিছান ফেলতে পারে, খালি লাঙ্গলটা ধরতি পারবো না?” কিংবা পার্টির মিটিং-এ যাওয়ার কথা বলতে বলতেই সাবিত্রী রাও-এর বয়ানে উঠে আসে গৃহ শ্রমের কথা, লিঙ্গভূমিকার কথা, মাতৃত্বের শ্রমের কথাও

শেয়ার করুন

হারাম

“তোমারে তো খেলাধূলায়, পড়াশুনায় বাধা দেওয়া হয় নাই। তুমি কি আরও সতর্ক হয়ে আদবের সাথে এগুলান করতে পারতা না?”— আর্জিনা চুপ। “তুমি কি জানো মৌলানা বাড়ির মেয়েদের আদব সহি না হলে সে হারামের দায়ে সে বাড়ির নামাজীদেরও আল্লাহ শাস্তি দেন?”— আর্জিনা চুপ। “তুমি আর খেলবা না ফুটবল, কাল তো রবি, আমি সোমে তোমার স্কুলে গিয়ে বলে আসব”— আর্জিনা চুপ।

শেয়ার করুন

ছোটদের চোখে মে দিবস

মে দিবসে বামা’র পক্ষ থেকে ছোটদের কাছে জানতে চাওয়া হয়েছিল তারা কিভাবে মে দিবসকে দেখে। তারই কয়েকটি উত্তর নিয়ে এই পোস্ট।

শেয়ার করুন

May Day

May day is celebrated on the 1st of May as the International Worker’s Day or International Labour Day. May Day celebrates unity and solidarity of workers as well their hard work and achievements. Historically, in Europe May Day has been celebrated as a day of merriment to mark the arrival of summer and was associated with blooming flowers symbolizing rebirth.

শেয়ার করুন

ব্যামা-ব্যামি সংবাদ ০০৩

‘বামা’ পত্রিকার প্রত্যেক সংখ্যায় থাকবে রঙ্গতামাশা এবং সঙ্গে থাকবে ব্যামা-ব্যামি সংবাদ।

কথা – তমোঘ্ন হালদার এবং অনিন্দ্য সেনগুপ্ত

অলংকরণ – অনিন্দ্য সেনগুপ্ত

শেয়ার করুন

দশটি ভাই চম্পা আর একটি পারুল বোন- আসামের ভাষা আন্দোলন

কটা বারো-তেরো বছরের মেয়ে গল্প শুনছে তার বাবার মুখে। সালটা ২০০২। শুনছে ১৯৬১ সালের ভয়াবহ দিনগুলোর বর্ণনা। বাংলা ভাষাকে রাজ্য ভাষা কারার দাবিতে আন্দোলনরত মানুষদের উপর আসাম সরকারের চুড়ান্ত নির্যাতনের ধারাভাষ্য। ১৯৬১’র ১৯শে মে ১১ জন সত্যাগ্রহী নাগরিককে আসামের মুখ্যমন্ত্রীর গোপন নির্দেশে শিলচর রেল স্টেশনে গুলি করে নির্মম ভাবে হত্যা করার কথা।

শেয়ার করুন

পরিযায়ী শ্রমিক – ত্রাণের রাজনীতি পেরিয়ে, প্রথম কিস্তি

গতবছর থেকেই আমরা দেখেছি পরিযায়ী শ্রমিকদের উপর নেমে আসা আঘাতের বীভৎসতা। যে শহরগুলোকে তাঁরা নিজেদের শ্রম দিয়ে তিলে তিলে গড়ে তুলেছেন, রুজিরুটি হারিয়ে, কোনও সাহায্য না পেয়ে সেই শহর থেকেই বিতাড়িত হতে হয়েছে তাঁদের। সরকার কোনও ব্যবস্থা না করায়, যেটুকু যাতায়াতের ব্যবস্থা করা গেছে, তাতেই গাদাগাদি করে বাড়ি ফিরেছেন হাজার হাজার শ্রমজীবী মানুষ। যাঁরা যানবাহনের ব্যবস্থা করতে পারেননি, তাঁরা কয়েকশো কিলোমিটার হেঁটেছেন। মারা গেছেন পথেঘাটে, রেললাইনে। এ বছর করোনার দ্বিতীয় ধাক্কা শুরু হতেই আমরা দেখেছি আবার একই ছবি। গতবছর থেকে জাতীয় স্তরে পরিযায়ী শ্রমিকদের সঙ্গে কাজ করেছে মাইগ্র্যান্ট ওয়ার্কার্স সলিডারিটি নেটওয়ার্ক বা পরিযায়ী শ্রমিক সংহতি মঞ্চ। বামার পক্ষ থেকে জিগীষা কথা বললেন মঞ্চের সদস্যা শ্রেয়া ঘোষের সাথে। শ্রেয়া বর্তমানে গবেষণারত, এবং শ্রমজীবী অধিকার, ছাত্রছাত্রী আন্দোলন ও নারী অধিকার আন্দোলনের কর্মী।

শেয়ার করুন

মাধবীলতা কমপ্লেক্স ও নকশাল আন্দোলনের লিঙ্গ রাজনীতি

আমি নকশালবাড়ি দেখিনি। আমি বলা যেতে পারে জরুরি অবস্থার সন্তান। কাজেই, আমার সাথে নকশালবাড়ির সম্পর্ক ঐতিহাসিকতার সম্পর্ক। যে ঐতিহাসিকতা আবার এক ধরনের জ্যান্ত ঐতিহাসিকতা। প্রতি পদে আমাদের প্রাত্যহিক জীবনে ছাপ ফেলতে ফেলতে যায়। তো, আমার গল্পে বড়ো হয়ে জুড়ে থাকবে নয় দশকের দেখা বাস্তবতা। যে বাস্তবতার মধ্যে আবার গভীরভাবে ছাপ ফেলেছিলো পূর্ববর্তী দশকগুলোর বাস্তবতাও।

শেয়ার করুন

ফিলিস্তিনের সংহতিতে

কাশ্মীরী তরুণ মুদাসির গুলের গ্রাফিতি। দারিন তাতুন-এর Resist, Me People, Resist Them  অনুবাদ। ঘাসান কানাফানির Letter from Gaza অনুবাদ। শেয়ার করুন

শেয়ার করুন

Not a Step Back, ফ্যাসিবাদ বিরোধী ভিক্টরি ডে

নাইট উইচেস। লাল ফৌজ। হোয়াইট রোজ আন্দোলন। ইতালির পার্টিসান আন্দোলন। ওয়ারশ ঘেটো বিদ্রোহ। শেয়ার করুন

শেয়ার করুন

মে দিবসের উত্তরাধিকার

ছোটদের চোখে মে দিবস মে দিবসের গল্প, ছোটদের জন্য। মে দিবসের কবিতা, অনুবাদ। পুঁজিবাদ, পিতৃতন্ত্র ও মেয়েদের লড়াই, পর্ব ১, গদ্য। লুসি পারসনস, হে-মার্কেট শ্রমিক বিক্ষোভের অন্যতম কারিগর, দ্রোহের পঞ্জিকা। গৃহ শ্রমিকদের রোজনামচা, গৃহ শ্রমিকদের লড়াই, প্রবন্ধ। শ্রেণি সংগ্রাম ও পিতৃতন্ত্র, অনুবাদ। মে দিবসের রাতভোরের গল্প, ছোটদের জন্য। শেয়ার করুন

শেয়ার করুন

প্রসঙ্গ লকডাউন

লকডাউন, কাজ এবং কিছু ঘরে বাইরের কথা, প্রবন্ধ। লকডাউন ও ঋতুস্রাব, ঋতুস্রাব স্বাস্থ্যমাসে ফিরে দেখা, প্রবন্ধ। পরিযায়ী শ্রমিক, ত্রাণের রাজনীতি পেরিয়ে, কথোপকথন। হিজড়ে বলে ডাকতেন যে কাকিমা, তিনিই বেড চাইতে এলেন, কথোপকথন। মুর্শিদাবাদের নারী শ্রমিকদের জীবন ও যন্ত্রণা, গদ্য। অসুখ সারায় যারা, গদ্য। শেয়ার করুন

শেয়ার করুন

ফিলিস্তিন

ফিলিস্তিন। ৭৩ বছর ধরে ইস্রায়েল রাষ্ট্রের দখলের বিরুদ্ধে মাটি কামড়ে লড়াই করার নাম। ৭৩ বছর ধরে জায়নরাষ্ট্রের গুলি, বোমা, টিয়ার গ্যাস, আইরনিক ডোম, ড্রোনের বিরুদ্ধে পাথর ছোঁড়ার বেপোরয়া প্রত্যয়ের নাম। ইস্রায়েলের ইতিহাস বদলে দেওয়া, ঔপনিবেশিকতার বিরুদ্ধে স্মৃতি আঁকড়ে গল্প, কবিতা লেখার নাম। ইস্রায়েলের দেওয়ালে প্রতিরোধের আঁচর কাটার নাম। মোসাডের অত্যাধুনিক প্রযুক্তির বিরুদ্ধে স্বাধীনতার অদম্য ইচ্ছে বুকে জান কবুল লড়াইয়ের নাম। ইস্রায়েলি সেনার বন্দুকের সামনে মেয়েদের রুখে দাঁড়ানোর নাম।

শেয়ার করুন

পুঁজিবাদ, পিতৃতন্ত্র এবং মেয়েদের কাজ, প্রথম কিস্তি

অনেকদিন ধরেই ভাবছি তোকে কিছু লিখব কিন্তু দৈনন্দিনতার বোঝা টানতে টানতে কেমন মরচে ধরে যায় মাথায়, আঙুলে…নতুন কিছু ভাবা বা লেখা হয় না। আজ সন্ধ্যেবেলা এক পরিচিত মানুষের সাথে জোর বিতর্ক হল। তার বক্তব্য শিল্পায়ন পরবর্তী যুগে মহিলাদের গৃহবন্দী হয়ে থাকতে হয়নি, রান্না এবং বাচ্চা মানুষ করার বাইরে তাদের কাজের সংস্থান হয়েছে, অতএব এতে পিতৃতন্ত্রের ভীত নড়ে গেছে। আমি মোটেই এই বক্তব্যের সাথে একমত নই। আমার মনে হয়ে শিল্পায়নের হাত ধরে আসা পুঁজিবাদ, পিতৃতন্ত্রকে চ্যালেঞ্জ তো করেইনি বরং তার সাথে হাত মিলিয়ে মহিলাদের শোষণ করেছে। এইসব বিতর্কের পর মনে হল, শিল্পায়ন আর মহিলাদের কাজের ইতিহাসটা লিখেই ফেলি। এই ইতিহাস অনেকটা বড়, কিছুটা জটিল…উপরন্তু দেশ, সমাজ ও সাম্রাজ্যবাদের প্রকার স্থান, কাল হিসেবেও ভিন্ন। অবশ্যই ভারতে শিল্পায়নের বিকাশ এবং মহিলাদের কাজের ইতিহাস ইংল্যান্ড বা ফ্রান্স এর ইতিহাস থেকে আলাদা। তবে আজকের চিঠিতে চল আমরা ইংল্যান্ড এবং ফ্রান্স এর গল্পটা দিয়ে শুরু করি।

শেয়ার করুন

গৃহশ্রমিকদের রোজনামচা, গৃহশ্রমিকদের লড়াই

শহরের কোন এক ফ্ল্যাটবাড়িতে সাতসকালে একজন মেয়ে এসে পৌঁছলো। কলিং বেলের শব্দে দরজা খুলে দিল গৃহকর্ত্রী। মেয়েটি নিঃশব্দে ঢোকে এবং তারপর একে একে সেরে ফেলে সিঙ্কে নামানো বাসি এঁটো বাসন মাজা, ঘর ঝাঁট দেওয়া মোছা, ময়লা জামাকাপড় কাচা, কখনও বা রান্নাবান্না করা টিফিন বানানো এইসব; যে কাজগুলোর সাথে ওতপ্রোত জুড়ে থাকে কিছু মানুষের ‘ভালো’ বা ‘সুস্থ’ থাকা, অর্থাৎ সময়মতো পরিষ্কার জামা পরা, পরিচ্ছন্ন ঘরে থাকা, খাবার খাওয়া ইত্যাদি। নয়ের দশকের পর থেকেই এই চিত্র আমাদের কাছে খুবই পরিচিত।

শেয়ার করুন

রাত শেষে

সেই মেয়ে একদিন
চুপি চুপি রাতে
তোমার গোপন বাসনার
ঘরে করে চুরি
তুমি ভাবো এই বার তবে
সঙ্গম, রতিক্রীড়া শেষে
হবে সে তোমার রমণী।

শেয়ার করুন

ঝুমুরঃ রাঢ়বঙ্গের শ্রমসঙ্গীত

মানুষের শ্রমের সঙ্গে যেমন অবসরের সম্পর্ক, সভ্যতা আর সংস্কৃতির সঙ্গে তার সম্পর্কও তেমনই নিবিড়; অর্থাৎ শ্রম ব্যতিরেকে অবসর যেমন অর্থহীন তেমনি শ্রম ও অবসর এই দুইয়ের সামঞ্জস্য না থাকলে মানব সভ্যতা ও সংস্কৃতির বিকাশ ঘটতে পারেনা। বানর থেকে মানুষ হবার প্রক্রিয়ায় এবং মানব সভ্যাতার বিকাশে শ্রমের ভূমিকা যে কতদূর তা ইতিমধ্যেই এঙ্গেলসের লেখা থেকে আমরা সকলেই কমবেশি জানি।

শেয়ার করুন

মে দিবসের রাতভোরের গল্প

৩০শে এপ্রিল থেকে পয়লা মে-র দিকে যাওয়ার সময়ে ভোরে, যখন আলোটালো কিছুই ফোটেনি, তখন কালিশহরের মাঠে পাঁচখানি ছায়ামূর্তি এসে হাজির হল। সবকটাই চারপেয়ে। তোমার যদি চোখ খুব ভাল হয়, সেই আধো অন্ধকারেও তুমি বুঝবে যে একটা বিশাল কুকুর, একটা মাঝারি সাইজের হাতি, একটা গাধা, একটা গরু আর একটা ঘোড়া কালিশহরের মাঠে এসেছে। মাঠে তখন প্রচুর লোক তাঁবু খাটিয়ে বা খোলা আকাশের নিচে গভীর ঘুমে মগ্ন।

শেয়ার করুন

কাগজের ছবি

এর আগে ছোটদের জন্য আঁকিনি। ছোটবেলা পেরিয়ে বড়দের সাথে টেক্কা দেওয়ার কঠিন চেষ্টায় বড় হয়ে আমি এতদিনে বুঝি কিছুটা হাঁপিয়ে উঠেছি। হয়তো তাই আজকাল খুব ছোটবেলার কথা মনে পড়ে। হয়তো তাই আজকাল ছোটদের জন্য কিছু আঁকতে ইচ্ছে করে। ছোটরা আমার কাজ দেখে যেন আকাশছোঁয়া স্বপ্ন দেখবার ভরসা পায়, এমনটা ভেবেই কাজগুলো করি।

শেয়ার করুন

Not a Step Back

“মেয়েদের স্থান প্রাথমিক ভাবেই পরিবারে। দেশের প্রতি তাদের প্রধান কর্তব্যই হলো বাচ্চা জন্ম দিয়ে জাতের অমরত্ব টিকিয়ে রাখা”। গোয়েবেলসের এই বক্তব্যই নাৎসি আদর্শের মেয়েদের প্রতি দৃষ্টিভঙ্গি স্পষ্ট ভাবে বুঝিয়ে দেয়। হিটলার শাসনের অন্যতম স্লোগান ছিল ‘Kinder, Küche, Kirche’ অর্থাৎ ‘বাচ্চা, রান্নাঘর, গির্জা’। নারীত্বের এই সংজ্ঞাই স্পষ্ট করে দেয় ফ্যাসিবাদের নারীবিদ্বেষী চরিত্র। ফলে নাৎসিদের যেমন একদিকে …

Not a Step Back Read More »

শেয়ার করুন

প্রতিরোধ প্রতিরোধ

আমার জমির দখল নিয়েছে যারা,

উচ্ছেদ হবে। ততদিন থামবোনা।

পতাকা নামানো শান্তির সমাধান

আমি মানবনা, ততদিন মানবনা।

শত শহীদের রক্তে রাঙ্গানো পথে

রুখব লুঠেরা, রুখব দখলদার।

ছিঁড়ে ফেলে দেব ঢপের সংবিধান

বিচার তো নয়, দমনের হাতিয়ার!

শেয়ার করুন

শ্রেণি সংগ্রাম ও পিতৃতন্ত্র: মাওবাদী আন্দোলনে মেয়েরা

ভীমা কোরেগাঁও মামলার অন্যতম অভিযুক্ত সোমা সেনের বর্তমান ঠিকানা মহারাষ্ট্রের বাইকুলা জেল। ২০১৮ সালের ৬ জুন, বিভিন্ন শহরে হানা দিয়ে একাধিক সুপরিচিত রাজনৈতিক ও মানবাধিকার কর্মীকে গ্রেফতার করে পুনে পুলিস। ইউএপিএ-সহ একাধিক মিথ্যা মামলায় অভিযুক্ত হয়ে জেলে যান সোমা সেনসহ মোট পাঁচজন মানবাধিকার কর্মী। পরবর্তীতে এই একই মামলায় জেলে গেছেন দেশের মোট ১৫ জন প্রথম সারির রাজনৈতিক কর্মী। শ্রমিক ধর্মঘট থেকে নারী আন্দোলন, সারা জীবনই ব্যবস্থাবদলের পক্ষে লড়াইয়ে থেকেছেন সোমা সেন, দাঁড়িয়েছেন নিপীড়িত মানুষের সংগ্রামের পাশে। ভারতের মাওবাদী আন্দোলন ও আন্দোলনে মেয়েদের ভূমিকা তাঁর অন্যতম আগ্রহের জায়গা। কাজ করেছেন একাধিক মানবাধিকার ও নারী সংগঠনের সঙ্গে। ২০১৭ সালে নকশালবাড়ির ৫০ বছরে ইপিডব্লিউ পত্রিকায় এই নিবন্ধটি তিনি লেখেন।

শেয়ার করুন

সম্পাদকীয়, মে ২০২১

গত এক মাস ধরে দেশজুড়ে মৃত্যু মিছিল; শহরে শহরে জ্বলল গণচিতা, খোঁড়া হল গণকবর, পার্ক হয়ে উঠল অস্থায়ী শ্মশান। আমরা আমাদের সহনাগরিকদের শব ভেসে যেতে দেখলাম নদীর জলে। শুধুমাত্র অক্সিজেনের অভাবে, ন্যূনতম স্বাস্থ্য পরিষেবা না পেয়ে দেশজুড়ে মৃত্যু হল হাজার হাজার মানুষের। আমরা হারালাম আমাদের স্বজন, বন্ধু, আর কমরেডদের।

শেয়ার করুন

গাজা থেকে লিখছি

ভয়াবহ দুঃস্বপ্নের ভীষণ যন্ত্রণার থেকেও বেশি দমবন্ধ করা এই গাজা, সরু সরু রাস্তা আর বড় বড় বারান্দায় গিজগিজে গাজা…এই গাজা! কী সেই অস্পষ্ট কারণ যা মানুষকে তার পরিবার, তার বাড়ি, তার স্মৃতির দিকে টানে, যেমন বসন্ত টানে পাহাড়ি ছাগলের পালকে?

শেয়ার করুন

এদ্রিয়ান রিচ -কে মনে রেখে

আমি জানি তুমি এই কবিতা পড়ছো
সেই ঘরে যেখানে তোমার সহ্যের বাঁধ ভেঙেছে বহুবার
বিছানায় ছড়ানো জামা কাপড়ের স্তূপ, খোলা সুটকেসটা
পালাবার কথা বললেও
তুমি এখনও ছেড়ে যেতে পারছো কই

শেয়ার করুন

লুসি পারসনস, হে মার্কেট শ্রমিক বিক্ষোভের অন্যতম কারিগর

আজীবন সমাজতন্ত্রী রাজনৈতিক কর্মী হিসেবে কাজ করে যান লুসি। সারাজীবনে যুক্ত হয়েছেন বিভিন্ন রাজনৈতিক গ্রুপের সঙ্গে, নীতির প্রশ্নে থেকেছেন আপোসহীন। বিপ্লবের মাধ্যমে পুঁজিবাদী ব্যবস্থার উচ্ছেদের লক্ষ্যে স্থির থেকে চালিয়ে গেছেন লড়াই। কৌশলগত কারণেই ধোঁয়াশা তৈরি করেছেন নিজের বর্ণগত পরিচয় ও অতীত নিয়ে।

শেয়ার করুন